দুধের সাথে যে ৫ টি খাবার মিশিয়ে খেলেই বিপদ?

দুধের সাথে যে ৫ টি খাবার মিশিয়ে খেলেই বিপদ?

দুধ স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এই বিষয়টি আমাদের সবারই জানা। কিন্তু আপনারা জানেন কি এমন কিছু খাবার আছে, যা দুধের সঙ্গে খেলে শরীরের মারাত্মক ক্ষতি হয়ে থাকে? প্রতিটা মানুষের প্রতিদিন অন্তত এক গ্লাস করে দুধ খাওয়া উচিত। দুধের মধ্যে ক্যালসিয়াম, ভিটামিন সি, পটাশিয়ামের গুণ আছে। সঙ্গে এটির রয়েছে আরও নানা ধরনের উপকারিতাও । তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দুধের সঙ্গে কিছু ভুল খাবার খাওয়া হলে পুষ্টির বদলে শরীরে সৃষ্টি হতে পারে কঠিন রোগ! এর ফলে বমি, গ্যাসট্রিক, অ্যালার্জির মতো নানা সমস্যায় ভুগতে হতে পারে৷ লাইফস্টাইল বিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই ডটকমের প্রতিবেদন অনুযায়ী জেনে নেওয়া যাক, দুধের সঙ্গে কোন কোন খাবার খাওয়া কখনই কারও উচিত নয়-

মাছ

মাছ

মাছ

পুষ্টিসমৃদ্ধ খাবারের তালিকায় অন্যতম সেরা হলো মাছ। এর মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন ছাড়াও রয়েছে যথেষ্ট প্রোটিন। কিন্তু পুষ্টিবিদদের মতে, দুই ধরনের প্রোটিন একসঙ্গে খাওয়া স্বাস্থ্যর জন্য খুবই ক্ষতিকর। এতে পাচনতন্ত্রের ওপর খারাপ প্রভাব পড়ে থাকে। মাছ হলো প্রাণীজ প্রোটিন। দুধের মধ্যের প্রোটিনের সঙ্গে এটি মিলিত হলে ভারসাম্যের অভাব হয়। এতে শারীরিক অস্বস্তি, পেটে ফোলাভাব এবং ত্বকে অ্যালার্জিও দেখা দিবে।

কলা

কলা

কলা

কলা যেমন পুষ্টিকর, তেমনই সুস্বাদু একটি ফল। অন্যদিকে, শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় প্রায় প্রতিটি উপাদানই দুধের মধ্যে থাকে। কিন্তু তারপরও বিশেষজ্ঞদের মতে , এই দুই খাবার একসঙ্গে খেলে স্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক ঝুঁকি হতে পারে। কেননা, দুধের সঙ্গে কলার মিশ্রণ পেটে হজম হতে অনেক সময় নেয়। তাই এই দুটি একসঙ্গে খেলে সারাদিন পেট ভারী হয়ে থাকে, ফুলে থাকে। তাই বিশেষজ্ঞরা এই দুই প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার আলাদাভাবে খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

মুলা

মুলা

মুলা

মুলার মধ্যে রয়েছে পুষ্টিগুণে ভরপুর । কিন্তু মুলা খাওয়ার ঠিক পরেই দুধ পান করলে শরীরের নাকি মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, মুলা শরীরকে গরম করে। এটি দুধের সঙ্গে মিলিত হলে অ্যাসিড রিফ্লাক্স এবং পেটে ব্যথা হতে পারে। তাই এই দুটি খাবার গ্রহণের মধ্যে অবশ্যই কয়েক ঘণ্টার ব্যবধান রাখা ভালো।

লেবুজাতীয় ফল

লেবুজাতীয় ফল

লেবুজাতীয় ফল

টক জাতীয় কোন খাবার খাওয়ার আগে বা পরে, দুধ না খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। লেবুজাতীয় ফলে সাধারনত ভিটামিন সি এবং সাইট্রিক অ্যাসিড থাকে। যা কিনা দুধের সঙ্গে মিলিত হলে জমাট বাঁধতে পারে। যার ফলে অ্যাসিড রিফ্লাক্স, পেট খারাপ হতে পারে। এমনকি এর ফলে অ্যালার্জি এবং সর্দি-কাশিও হতে পারে।

তরমুজ

তরমুজ

তরমুজ

মৌসুমি তরমুজ ফলটির মধ্যে রয়েছে নানা রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা। তরমুজে মধ্যে আছে পটাশিয়াম, ভিটামিন এ, সি এবং বি। তবে তরমুজে প্রচুর পরিমাণে পানি থাকায় এতে প্রস্রাব উৎপাদন বেড়ে যায়। তরমুজ খাওয়ার সময়ে বা আগে-পরে দুধ খেলে শরীরে টক্সিন তৈরি হবার সম্ভাবনা থাকে । এর ফলে ফুড অ্যালার্জি, ডায়ারিয়া হওয়ার আশঙ্কা অনেক বেড়ে যায়। তাই বলা যায়, এই দুটি খাবার কখনোই একসঙ্গে খাওয়া উচিত না।

Leave a reply