জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার উপায় | everify.bdris.gov.bd

জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার উপায় | everify.bdris.gov.bd

জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার উপায় | everify.bdris.gov.bd

বর্তমানে বাংলাদেশে জন্ম নিবন্ধন প্রত্যেকটি নাগরিকের জন্য বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কারণ জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়েই কোন ব্যাক্তি দেশের নাগরিক কিনা তা নির্ধারণ করা হয়। তাই জন্ম নিবন্ধন প্রত্যেকটি নাগরিকের জন্য অতি প্রয়োজনীয়, আর – এই জন্ম নিবন্ধন হারিয়ে গেলে বা যদি কোন নাম বা বয়স ভুল হয় তাহলে সেটি সংশোধন করার জন্য জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার প্রয়োজন। নিচে জন্ম নিবন্ধন যাচাই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে যাচাই করতে , আপনাকে everify.bdris.gov.bd এই ওয়েব সাইটটিতে প্রবেশ করতে হবে।

– ওয়েব সাইটটিতে প্রবেশ করার পর জন্ম নিবন্ধন এর নাম্বার এর ঘর থাকবে সেখানে আপনার সঠিক জন্ম নিবন্ধনের নাম্বার দিতে হবে।
– এরপর জন্ম তারিখের জন্য একটি ঘর থাকবে সেখানে আপনার সঠিক জন্ম তারিখ দিতে হবে।
– সর্বশেষ ক্যাপসা দিয়ে সার্চ বাটনে ক্লিক করলে আপনার অনলাইন জন্ম সনদের সকল তথ্য, যেমন- নিজের নাম, পিতার নাম, মাতার নাম, জন্ম তারিখ, স্থায়ী ঠিকানা, বর্তমান ঠিকানা ইত্যাদি তথ্য, বাংলায় এবং ইংরেজীতে দেখতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অ্যাপস

জন্ম নিবন্ধনের যাচাই আপনারা অনলাইনে বা অফলাইনে বা অ্যাপসের মাধ্যমে করতে পারেন। অ্যাপসের মাধ্যম আপনি যদি নিজের ফোন দিয়ে ঘরে বসেই জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে চান। তাহলে প্রথমে আপনাদের ফোনের জন্ম নিবন্ধন যাচাই অ্যাপসটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে হবে। ডাওনলোড করতে ক্লিক করুন।

এরপর অন্যান্য অ্যাপস এর মতো অ্যাপটি ইনিস্টল করে, ওপেন করতে হবে। অ্যাপসটি ওপেন করার পর আপনারা বিভিন্ন অপশন দেখতে পারবেন। অপশন গুলোর মধ্যে জন্ম তথ্য যাচাই অপশনটি আপনাদের বেছে নিতে হবে। জন্ম তথ্য অপশনটিতে ক্লিক করলে আপনারা তিনটি ঘর দেখতে পাবেন।

প্রথম ঘরে আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর
দ্বিতীয় ঘরে জন্ম তারিখ
তৃতীয় ঘরে একটি ক্যাপচা পূরণ করতে হবে
ক্যাপচা পূরণ করে অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করুন
ক্লিক করার পর আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন দেখতে পারবেন

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন এর নাম্বার ভুলে যান সেক্ষেত্রে আপনি কেবলমাত্র জন্ম নিবন্ধনের তারিখ দিয়েই জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।  তারিখ দিয়ে  জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে হলে  লিংকে ক্লিক করুন everify.bdris.gov.bd তাহলে একটি পেইজ আসবে।

 এখানে এক নম্বর বক্সে আপনার জন্ম নিবন্ধনে থাকা ১৭ ডিজিটের সংখ্যাটি দিতে হবে।
এরপর ২ নম্বর বক্সে আপনার জন্ম তারিখটা বসাবেন এই ফরমেটে YY MM DD। জন্ম নিবন্ধন যাচাই YYY MM DD বলতে প্রথমে আপনার জন্ম নিবন্ধন সাল তারপর আপনার জন্ম নিবন্ধন মাস তারপর আপনার জন্ম তারিখ বুঝায়। যদি ভুলেও আগে জন্ম তারিখ তারপর মাস তারপর বছর দেন তাহলে জন্ম নিবন্ধন যাচাই সনদ দেখতে পারবেন না। এজন্য সঠিকভাবে জন্ম তারিখ প্রবেশ করাতে হবে।
এরপরে ৩ নম্বর বক্সে একটি ছবি দেখতে পাবেন। এখানে দুটি সংখ্যার একটি ছবি দেখাবে। ছবিতে সেই সংখ্যা দুটির যোগফল নির্ণয় করে নিচের বক্সে লিখতে  হবে। এরপর সার্চ বাটনে ক্লিক করলে আপনার সব তথ্য যদি সঠিক থাকে তাহলে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ দেখতে পারবেন।

বি: দ্র: এই প্রক্রিয়াটি শুধুমাত্র তাদের জন্য প্রযোজ্য যাদের জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করা হয়েছিল। যদি আপনার ডিজিটাল করা না হয়ে থাকে তাহলে আপনার ইউনিয়ন পরিষদ বা সিটি কর্পোরেশন বা পৌরসভার তথ্য কেন্দ্রে যোগাযোগ করতে হবে অথবা আপনি চাইলে ঘরে বসে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে পারবেন। প্রকৃতপক্ষে শুধুমাত্র জন্মসাল দিয়ে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করা সম্ভব নয়। অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য দুটি তথ্যের প্রয়োজন। সেগুলো হলো:

 ১৭ সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন নম্বর
 জন্ম তারিখ YYY MM DD

এই দুটি তথ্য দিয়ে আপনারা আপনাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ দেখতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড

উপরে আমরা জানলাম কিভাবে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করা যায়। এখন আমরা জানবো জন্ম নিবন্ধনের সনদ কিভাবে ডাউনলোড করা যায়।

 অনলাইন থেকে জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করা যায় কিন্তু  PDF  ফাইল ডাউনলোড করার কোন অপশন নেই। জন্ম নিবন্ধন সনদ একমাত্র আপনার ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য কেন্দ্র নির্ধারিত পরিচালক ডাউনলোড করতে পারবেন। প্রত্যেক ইউনিয়ন পরিষদে আলাদা একটি এডমিন প্যানেল দেয়া থাকে। সেখান থেকে তারা তাদের নির্বাচনী এলাকার জন্ম-মৃত্যু তথ্য সংকলন করতে পারে।
আপনি শুধু অনলাইনে তথ্য যাচাই করতে পারবেন। যখন আপনি অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করবেন তখন আপনার নির্ধারত ইউনিয়ন পরিষদে আপনার আবেদনটি পৌঁছে যাবে। তখন তারা সেটি রেজিস্টার করলে ডাউনলোড করতে পারবেন।
 আপনি শুধু জন্ম তথ্য যাচাই করে সেটাকে কম্পিউটারে pdf  আকারে প্রিন্ট করতে পারবেন। তারপরে সেই PDF  ডাউনলোড করতে পারবেন। এই জন্য প্রথমে কম্পিউটার কি-বোর্ডের Ctrl+P প্রেস করতে হবে। তারপরে আপনার ডাউনলোড লোকেশন সিলেক্ট করে ফাইল নাম দিয়ে ডাউনলোড দিবেন।

Leave a reply