চায়ের সঙ্গে বিস্কুট খেলে হতে পারে হার্টের রোগ

চায়ের সঙ্গে বিস্কুট খেলে হতে পারে হার্টের রোগ

আমরা অনেকেই, চা ছাড়া দিন শুরু করতে পারিনা ।আবার, দিনভর কয়েক কাপ চা না হলেই হয়না। আর চায়ের নামটি বললে তার সঙ্গে চলে আসে বিস্কুটের নামটিও। চায়ে চুবিয়ে বিস্কুট খেতে পছন্দ করেনা, এমন মানুষ কমই পাওয়া যাবে। অতিথি আপ্যায়নেও চায়ের ট্রেতে, চায়ের সাথে আসে বিস্কুটও। কিন্তু আপনি কি কখনো ভেবেছেন যে এই চা আর বিস্কুট একসঙ্গে খেলে তা আপনার শরিরের জন্য ক্ষতিকর হয়ে উঠতে পারে?

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চায়ের সঙ্গে বিস্কুট খাওয়া স্বাস্থ্যর জন্য মোটেও নিরাপদ নয়।এই সাধারণ একটি অভ্যাস ডেকে আনছে অনেক বড় ধরনের বিপদ। তাই খেতে যতই ভালো লাগুক না কেন, চা আর বিস্কুট একসঙ্গে খাওয়া উচিত না ।চায়ের সঙ্গে বিস্কুট খেলে নানা ধরনের ক্ষতি হতে পারে যার মধ্যে রয়েছে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যাওয়া, হার্ট অ্যাটাকের মতো সমস্যার ঝুঁকিও। এই প্রতিবেদন থেকে, জেনে নিন চায়ের সঙ্গে বিস্কুট খাওয়ার অপকারিতা-

হার্টের ক্ষতি করে

আপনি বাজার থেকে যেসব বিস্কুট কিনেন, সেগুলোতে ব্যবহৃত উপাদান সম্পর্কে কতটা জানেন? একটু খেয়াল করলেই জানতে পারবেন বিস্কুট তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে পাম তেল দিয়ে। এই পাম তেল হার্টের ক্ষতির কারণ হতে পারে। একই সাথে সব ধরনের বিস্কুটের মূল উপকরণই হলো ময়দা। ময়দায় থাকে গ্লুটেন, বিভিন্ন মাইক্রো ও ম্যাক্রো নিউট্রিয়েন্টস, যা রক্তে সুগারের মাত্রা বাড়ায়। সেইসঙ্গে ঝুঁকি বাড়ায় হার্টের সমস্যার ।

প্রিজারভেটিভ ও সোডিয়াম

বেশিরভাগ বিস্কুটে থাকে অতিরিক্ত প্রিজারভেটিভ ও সোডিয়াম। সোডিয়াম আমাদের শরীরের জন্য প্রয়োজনীয়, তবে এটি অতিরিক্ত মাত্রায় হলে তা আমাদের শরিরের জন্য মারাত্মক ক্ষতির কারণ। আবার, অতিরিক্ত সোডিয়াম গ্রহণের ফলে দেখা দিতে পারে বিভিন্ন কিডনিজনিত সমস্যা। তাই এ ধরনের ঝুঁকি থেকে বাচতে চায়ের সঙ্গে বিস্কুট খাওয়া বন্ধ করুন।

অতিরিক্ত খাওয়া

আপনি যখন বিস্কুট খেতে শুরু করেন, তখন খুব সহজেই এটি থামানো যায়না । এর কারণ হলো বিস্কুট খাওয়ার ফলে আমাদের মস্তিকে, এক ধরনের আনন্দের সৃষ্টি করে। যে কারণে অতিরিক্ত পরিমান বিস্কুট খাওয়া হয়ে যায়। অতিরিক্ত খাবার গ্রহণ মানে, অতিরিক্ত ওজন বাড়ার ভয়। এছাড়া এটি হজম প্রক্রিয়ায়ও বাধাঁ সৃষ্টি করতে পারে।

Leave a reply