গুগলের দারুণ টুলস : যা জীবনকে করবে সহজ

গুগলের দারুণ টুলস : যা জীবনকে করবে সহজ

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে আমরা গুগল উপর অনেক বেশি এবং গুগলের তৈরি টুলস গুলোর উপর নির্ভর হয়ে পড়েছি। গুগল বর্তমানে, বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর, ক্যালকুলেশন, ভাষার অদল বদল, শিক্ষা, এমনকি অলাইন ক্লাসরুমের মতো অসাধারণ কিছু সেবা ফ্রি প্রদান করে থাকে। 

এই গুগল এর এমন অনেক কিছু টুলস আছে যা সম্পর্কে আমরা অনরকেই এখনো অবগত নই। আমরা যখন কোনো জিনিস সর্ম্পকে কিছু জানতে চাই, কোন কিছুই গুগলের কাছে অজানা নয় । গুগলের এমনই কিছু দারুণ টুলস রয়েছে, যেগুলো আমাদের জীবনকে আর বেশি সহজ করে তুলছে যার কারণে এসবের ব্যবহারও বাড়ছে দিগুন হারে। এমনই সব টুলস গুলো নিয়ে আমাদের আজকের প্রতিবেদন৷ 

গুগল আর্ট এ্যান্ড কালচার (Google Arts & Culture)

জাদুঘর মানেই হলো অনেক নতুন কিছু দেখা, জানা বা শেখা। জাদুঘড় আমাদের বর্তমান থেকে অতীতে ঘুড়ে আসতে সাহায্য করে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জাদুঘরে ভ্রমণের ইচ্ছে থাকা শর্তেও যেতে পরছেন না? কিন্তুি, এখন চাইলেই আপনি, জানতে পারবেন কি আছে সেইসব জাদুঘরে!

গুগল আর্ট এ্যান্ড কালচার থেকে ঘুড়ে আসুন, এখানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ২০০০+ এর মতো জাদুঘরের বিভিন্ন তথ্য ও ছবি দেখতে পারবেন।  তাই ভ্রমণের সুযোগ না থাকলেও আপনি ঘরে বসেই সহজেই ঘুরে আসতে পারেন গুগল আর্ট এ্যান্ড কালচার থেকে।

‌গুগল ফিট (Google Fit)

সুস্থ থাকতে হলে প্রতিদিন হাঁটার কোন বিকল্প নেই। আর নিয়মিত, হাঁটা বিভিন্ন রোগের যেমন হার্টের সমস্যা, ডায়াবেটিস, স্ট্রোক, ওজন ইত্যাদির ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করে।

এবার, স্মার্টওয়াচের সাহায্যে আপনি গুগল ফিটের সহায়তায় হাঁটার প্রতি স্টেপ গণনা, দৈনিক কি ধরনের হাটা,  কোন পথে হাটা আপনি পছন্দ করেন তা সহজেই নির্ধারণ করতে পারবেন ‌গুগল ফিট ব্যাবহার করে৷  

গুগল কিপ (Google Keep)

এখন, ভুলে যাওয়া সমস্যা থেকে,  আপনাকে গুগল কিপ বাঁচাতে পারে । এতে আপনি যে কোন ধরনের টেক্সট বা অডিও ক্লিপের মাধ্যমে খুব সহজেই আপনার নোট আকারে সংরক্ষন করে রাখতে পারেন।

এছাড়াও আপনি চাইলে নোটগুলোর সাথে সহজেই ছবিও সংযুক্ত করা এমন কি আপনার নোটগুলো আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ারও করতে পারবেন গুগল কিপ – এ৷  

‌গুগল ড্রাইভ (Google Drive)

গুগল ড্রাইভ সম্পর্কে , কম বেশি আমাদের সবারই একটা ধারণা আছে । এখন, গুগল ড্রাইভ আপনার ফোনের লোড কমাতে বা জায়গার সমস্যার সমাধানেও কাজ করে। কিন্তু আপনি কি জানেন এর মাধ্যমে আপনার পছন্দের কোন মুভি খুঁজে পেতে সাহায্য করবে?

ধরেন,আপনি কোন মুভি দেখতে চাচ্ছেন কিন্তু তা খুঁজে পাচ্ছেন না? এতে গুগল ড্রাইভ আপনাকে সাহায্য করবে। যেকোনো মুভির নাম গুগলে সার্চে লিখে তার শেষে গুগল ড্রাইভ কথাটি উল্লেখ করলেই হবে। এরপর, আপনার পছন্দের মুভিটি অন্য কেউ তার ড্রাইভে ডাউনলোড করে রাখলে সে মুভিটি আপনি সহজেই পেয়ে যাবেন এবং আপনি সেখান থেকে মুভিটি ডাউনলোড করে দেখতে পারবেন।

গুগল মিরর  (Google Mirror)

মজার সব কাজ করতে আমাদের সবারই ভালো লাগে। এখন, গুগল এর এমনই মজাদার কিছু সাইট  সম্পর্কে চলুন জানি। আপনার গুগল এর প্রতিটি লেখা বা সব কিছু মিরর বা আয়নার মতো উল্টো প্রতিচ্ছবি হিসেবে দেখতে পারবেন গুগল মিরর এর মাধ্যমে।

এছাড়া আরও কিছু আছে যেমন আন্ডারগ্রাউন্ড, আপনাকে পানির নিচের জগৎ এ নিয়ে যাবে সহজেই। কিছু সার্চ করে দেখবেন পানিতে যেমন ভারি জিনিস ডুবে যায় ঠিক তেমনি কিছু করবে এই সাইটটি, গ্রাভিটির মতোই কাজ করবে। আবার। মজাদার কিছু দেখতে আপনি অবশ্যই কিছু লিখে সার্চ দিতে ভুলবেন না, গিটার-ভার্চুয়াল সাইট থেকে গিটারের সেই অনুভূতি উপভোগ করতে পারেন। এছাড়া রয়েছে বিভিন্ন ধরনের গেমস যেমন প্যাকম্যান, ২০৪৮ ইত্যাদি। একবার হলেও জিনিস গুলো দেখতে ভুলবেন না যেন।

গুগল ক্রোম টাস্ক ম্যানেজার (Google Chrome Task Manager)

দেখা যায়, অনেক গুলো ট্যাব ওপেন থাকলে আপনার ফোন যেমন হ্যাং বা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হয় এবং এর কারণে কাজ করা ও বেশ কঠিন হয়ে যায়। তেমনি গুগল ক্রোমে অধিক ট্যাব খোলা থাকলেও এই একই ধরনের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

এজন্যই অপ্রয়োজনীয় ট্যাবগুলো বন্ধ করতে গুগল ক্রোম টাস্ক ম্যানেজার বিশেষভাবে কাজ করে থাকে। তাই এখন কম্পিউটারের SHIFT+ESC এর মাধ্যমে আপনার গুগল ক্রোমে যেসব ট্যাব ওপেন আছে তা দেখতে পারবেন সহজেই এবং যেগুলো আপনার প্রয়োজন নয় সেসব ট্যাব, বন্ধ করতে পারবেন চাইলেই।

‌গুগল ডুও (Google Duo)

অনেক সময় ইন্টারনেট স্পিড কম থাকার কারণে কথা বলার সময় প্রায়ই লাইন কেটে যাওয়া বা বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয় এ সব সমস্যার অনেকটা সমাধানই যেন পাওয়া যায় গুগল ডুও ব্যবহারের মাধ্যমে ।তাই সহজেই  আপনার ইন্টারনেট স্পিড কম বা বেশির সাথে  মানিয়ে নিতে পারে গুগল ডুও।

আবার, গ্রুপ কল, স্ক্রিন শেয়ার সহ বিভিন্ন ধরনের সেবাও গুগল ডুওতে পাওয়া যায়। তাই বর্তমানে ভার্চুয়াল যোগাযোগের জন্য ভিডিও কল এর জন্য অন্যতম মাধ্যম এই গুগল ডুও

স্ন্যাপসিড (Snapseed)

প্রায়ই আমরা ছবিকে আরও সুন্দর করতে বিভিন্ন ধরনের ফিচার/ইমেজ ইডিটর ব্যবহার করে থাকি। আর স্ন্যাপসিড এমনই কাজ করে থাকে। স্ন্যাপসিড এর প্রায় ২৯ টি ফিচার এর সাহায্যে আপনি অতি সহজেই আপনার ছবিগুলো আকর্ষনীয় করে তুলতে পারবেন।ফটোশপ এর মতো কাজগুলো আপনি ফোনে স্ন্যাপসিড – এর সহায়তায় সহজেই করতে পারবেন।

‌গুগল লেন্স  (Google Lens)

আমাদের আশেপাশে অনেক কিছুই  আমরা দেখতে পাই তবে, এসবে৷ অনেক কিছুই আমাদের অজানা। আর এই অজানা জিনিস গুলোর সম্পর্কে জানতে,  ছবির সাহায্যে অর্থাৎ ছবি তুলে বা আপনার আগে তুলে রাখা ছবি থেকে, তার বিস্তারিত সবকিছু আপনাকে জানাবে গুগল লেন্স। এবার,কোন কিছুর নাম জানা না থাকলেও ছবিই যেন বলে দিবে তার সম্পর্কে সকল তথ্য। আপনার নতুন কিছু জিনিস সম্পর্কে জানার ইচ্ছে থাকলে গুগল লেন্স আপনার সেই ইচ্ছে পুরন করবে খুব সহজেই।

এখন,গুগল এর প্রয়োজনীয়তা সাপেক্ষে, বদলাচ্ছে প্রতি নিয়ত। গুগল টুলস গুলোরও এখন চাহিদা বাড়াচ্ছে। তাই আমাদের সেই সব টুলস গুলো সম্পর্কে জানা এবং সবাইকে জানানো খুবই গুরুত্বপূর্ন।

Leave a reply