ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে করণীয় কি ? এবং নতুন আবেদনের পদ্ধতি কি?

ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে করণীয় কি ? এবং নতুন আবেদনের পদ্ধতি কি?

ভোটার আইডি কার্ড / জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে গেলে কিংবা কোনো তথ্য হালনাগাদের প্রয়োজন হলে পুনরায় আবার ভোটার কার্ড পাওয়ার জন্য আবেদন করতে হয়।

ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে পুনরায় আবেদন

উপরের ছবিতে যে প্রোফাইল ও রিইস্যু অপশন রয়েছে এর মাধ্যমে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ডের যেকোনো তথ্যবলি পরিবর্তন করতে পারবেন। যদি ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে যায় কিংবা চুরি হয় তখন,আপনি অনলাইনে আবেদন করে আইডি কার্ড সংগ্রহ করতে পারেন। তবে, আবেদন করার আগেই আপনাকে থানায় একটি জিডি করতে হবে, কেননা আবেদনের সময় জিডি কপি দেখাতে হবে। ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে পুনরায় নতুন আইডি কার্ড সংগ্রহ করতে অফলাইন এবং অনলাইন দুই মাধ্যমেই আবেদন করা সম্ভব ।

এবার অনলাইন, আবেদনের ক্ষেত্রে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করে লগইন করুন। এরপর উপরের ছবির “রিইস্যু” অপশনে ক্লিক করলে আপনার রিইস্যুর পুনর্মুদ্রণ কারণ, জিডি নম্বর, থানা, পুলিশ অফিসারের নাম, পুলিশ অফিসারের পদবী, জিডির তারিখ সঠিকভাবে পূরণ করে সাবমিট করুন । সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আবেদন সফল হবে এবং আপনি পুণরায় অনলাইন থেকে আপনি আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করতে পারবেন।

আর, অফলাইনে, হারানো ভোটার আইডি কার্ড ফিরে পেতে জিডির কপি নিয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসে যেতে হবে।

অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ডের নতুন আবেদন করার নিয়ম

অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন এখন ঘরে বসেই। কেননা, আপনার যদি বয়স যদি আঠার বছর বা তার বেশি হয়, এবং ভোটার না হয়ে থাকেন, কিংবা আবেদন না করে থাকেন, তবে ভোটার আইডি কার্ডের জন্য অনলাইনে আবেদন করে সংগ্রহ করতে পারেন। চলুন দেখে নেয়া যাক, কিভাবে আবেদন ও অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করে পারবেন।

প্রথমে নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে services.nidw.gov.bd সাইট ভিজিট করুন। “নতুন নিবন্ধনের জন্য আবেদন” অপশনটিতে ক্লিক করুন। আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য দাখিল করার জন্য ফরম পাবেন, সেটি পূরণ করার পর অন্য একটি পেজে নেওয়া হবে, যেখানে আরো বিস্তারিত তথ্য এবং প্রয়োজনীয় কাগজ আপলোড করতে হবে যেমন: ছবির স্ক্যান কপি, বয়সের প্রমান পত্র বা জন্ম সনদ, সার্টিফিকেট, ইত্যাদি। ফর্মটি ফিলাপ করার সময় অবশ্যই সাবধানতা বজায় রাখবেন কেননা, আপনার পূরণ করা সকল তথ্যই পরবর্তীতে আপনার ভোটার আইডি কার্ডে দেখতে পাবেন। পুনরায় সকল তথ্য চেক করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে। এবার, আবেদনের কপি ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে নিন।
এবার,প্রিন্ট কপি আপনার নিকটস্থ উপজেলা নির্বাচন অফিসে গিয়ে জমা দিলেই আপনার ভোটার আইডি কার্ডের কাজ শুরু হবে। পরবর্তীতে আপনার মোবাইলে একটি মেসেজ আসবে, যেখানে থাকা সকল ইনফরমেশন ব্যবহার করে অনলাইনে একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। এবার, একাউন্টে লগইন করে অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন এছাড়া, আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপিও কিছুদিনের মধ্যেই চলে আসবে।

কোন কোন ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্রের প্রয়োজন হয়?

জাতীয় পরিচয়পত্র প্রতিটি প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ এটি বিষয়। এটি বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। এটির প্রায় ২২ টি ক্ষেত্রে এর ব্যবহার রয়েছে-

– শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তির জন্য,
– আয়করদাতা সনাক্তকরন নম্বর পেতে,
– ড্রাইভিং লাইসেন্স করা ও নবায়নের করতে,
– ট্রেড লাইসেন্স করার জন্য,
– পাসপোর্ট করা ও নবায়নের ক্ষেত্রে,
– যানবাহন রেজিস্ট্রেশনের করতে,
– চাকরির আবেদনের ক্ষেত্রে, বীমা স্কিম এ অংশগ্রহণের জন্য,
– স্থাবর- সম্পত্তির ক্রয় বিক্রয়
– বিয়ে ও তালাক রেজিষ্ট্রেশন
 ব্যাংকের হিসাব খোলা
– নির্বাচনে ভোটার শনাক্ত করা
– গ্যাস পানি বিদ্যুৎ সংযোগ
– সরকারি বিভিন্ন ভাতা পাওয়া
– ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহন
-টেলিফোন ও মোবাইল সংযোগের গ্রহন
– সরকারি ভর্তুকি,সাহায্য,সহযোগিতা গ্রহন
– শেয়ার আবেদন ও বিও হিসাব খোলা
– ই-টিকেট করা
– আসামি-অপরাধী শনাক্ত করা
– বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নম্বর পাওয়া
– সিকিউর ওয়েব লগইন করা

এই সকল ক্ষেত্রের সেবা পেতে হলে অবশ্যই আপনাকে জাতীয় পরিচয়পত্র দেখাতে হবে। আর জাতীয় পরিচয়পত্র দেখাতে না পারলে আপনি এসব সেবা থেকে বাদ পড়বেন । এজন্যই বলা যায়, জাতীয় পরিচয়পত্র একটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। তাই অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন এবং প্রয়োজন অনুযায়ী তা কাজে লাগান।

নির্বাচন কমিশনের হেল্প লাইন

আপনার পরিচয়পত্রের যেকোন সমস্যা যেমন ভুল তথ্য সংশোধন, অনলাইনে আইডি কার্ড ডাওনলোড রেজিষ্ট্রেশন করার নানা সমস্যাগুলোর জন্য আপনি চাইলেই নির্বাচন কমিশনের হেল্পলাইনে যোগাযোগ করতে পারেন

– যোগাযোগের ঠিকানাঃ নির্বাচন ভবন (৭-৮তলা), আগারগাঁও, ঢাকা-১২০৭
– কল সেন্টার নম্বরঃ ১০৫
– হেল্পলাইন ইমেইলঃ info@nidw.gov.bd
– ফেইসবুক পেইজ ভিজিট করুনঃ fb/bd.nid
– হেল্প লাইন নম্বরঃ +8801708501261 যোগাযোগের সময়ঃ রবি-বৃহস্পতি, সকাল ৯:০০টা – বিকাল ৫:০০টা পর্যন্ত

Leave a reply